ফেলু মার্কা

বড় ছেলেটি বড্ড ভাল
ক্লাসে প্রতিবার ভাল রেজাল্ট করে
ক্লাব করে না বন্ধু বান্ধবদের নিয়ে আড্ডা মারে না
শান্তশিষ্ঠ বই পোকা।
ছোটটি পাজি হতচ্ছাড়া পড়াশুনাতে মন নেই
সারাদিন ক্লাব আড্ডা- ও নাকি সমাজসেবা করে
ঘরে এসে বোনের সাথে খুনসুটি
ঘুরে ফিরে জিজ্ঞেস করে ‘মা তুমি ঠিক আছ তো'?
মায়ের রাগ হয় ভবিষ্যত ভাবলে ঠিক থাকা যায় না।
সবাই ফেলু মার্কা বলে।
বড়টি মুখ উজ্জ্বল করার মতোই প্রতিষ্ঠিত হয়েছে
ওঁর নাকি ষ্ট্যাটাস বেড়েছে
বলে তোমাকে আমি রাখতে পারব না মা
বউ বাচ্চা নিয়ে নিজের ফ্ল্যাটে বাস করে।
ফেলুমার্কা মোটামুটি একটি সরকারি চাকরি করে
অফিসে যাওয়ার আগে মাকে প্রণাম করা চাই
ফিরে এসে ‘কেমন আছ মা'?
মায়ের আশির্বাদের ওপর বড় ভরসা তার
বলে-ও টুকু হলেই চলবে তার।
বুড়ো বয়সে হাটু ব্যথা কোমর ব্যথা নিয়ে শরীর জেরবার মায়ের
কমে গেছে মনের জোর, কমে গেছে দেহের জোর
আছে এক জোর
সেটা ঐ ফেলু মার্কার জোর।

by Madhabi Banerjee

Comments (0)

There is no comment submitted by members.