শারদীয়া ।। জন কীটস (Bengali Version)

কুয়াশাচ্ছন্ন এক ঋতু আর পরিণত পেকে-ওঠা সাফল্যের গান,
গলায় গলায় মাখা, হরিহর আত্মা যেন তেঁতে-ওঠা রোদ ও সূর্যের;
দুজনেই শলা করে, কীভাবে ভরানো যায় খড়ের মাচান
আশীর্বাদে, লতানো সবুজ থেকে উৎসারিত বর্ণিল যত ফলেদের;
নুয়ে পড়া আপেলে-বেষ্ঠিত ক'রে শেওলা-জমা কুটির ও গাছপালাগণে,
পক্ক-রসে ভরপুর করে দিয়ে সমস্ত ফলের শোভা আর দেহমন;
কোমল ও মিষ্টি শাঁসে লাউয়ের বাদামী খোল ভরিয়ে-ফুলিয়ে
নতুন অসংখ্য কুঁড়ি, ফুল, ফল ফলানোর ক'রে আয়োজন,
এবং অধিক কিছু ফুটিয়ে নমলা ফুল মৌমাছিদের প্রয়োজনে,
যেন ভাবে, এই উষ্ণতার দিন কোনওদিনও ফুরাবে না বনে;
যেহেতু গ্রীষ্মই দিতো চাকের শুকনো কোষ উপচে ও দুলিয়ে।

তোমাকে দ্যাখেনি কারা প্রায়শঃই এতো এই ফসলের জমা লক্ষ ক'রে?
যারা আরও আগুয়ান হয়েছে আগ্রহে, তারা ঠিক দেখেছে তোমাকে
ব'সে আছো নির্বিকার কী বিপুল শস্যভাণ্ডারে, নিশ্চুপ, যেন ধুম ধ'রে,
তোমার কোমল চুল দুলে গেছে তুষ-তাড়ানো হাওয়ার বাঁকে বাঁকে;
অথবা আধেক-কাটা ধানমাঠে ঘুমিয়েছো হালের গভীর দাগে শুয়ে,
পপির মাতাল গন্ধে ঝিমোতে ঝিমোতে; যখন তোমার কাস্তেখানি
শুয়ে আছে নিকেটেই নিঝুম আলের 'পরে, জোড়াফুল, দেখে মনে হয়:
আবার কখনও তুমি থেকে গেছো ভারানত মাথাটিকে একটানা নুয়ে,
তোমাকে গিয়েছে দেখা খালটির ওইপাড়ে, যেন তুমি ফসল-কুড়ানি;
অথবা আপেল ছেঁচে রস-করা যন্ত্রটির পাশে রেখে মনোযোগী চোখ দুইখানি,
দেখেছো কীভাবে শেষবিন্দু-রসও খ'সে পড়ে__ সেই দৃশ্য, দীর্ঘ সময়।



* Bengalized by Rahman Henry

** Original:

Ode to Autumn- Poem by John Keats

by Rahman Henry

Comments (0)

There is no comment submitted by members.